dainik shomoy | logo

১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

ভারত একাই মোকাবিলা করতে সক্ষম চীনকে।

প্রকাশিত : অক্টোবর ০৪, ২০২০, ১৬:১৮

ভারত একাই মোকাবিলা করতে সক্ষম চীনকে।

দৈনিক সময় আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ভারত ও চীনের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। লাদাখ সীমান্তে গলওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর সতর্ক অবস্থানে আছে দুই দেশের সেনারা। এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্পক্ষীয় জোট গঠনের প্রস্তাব সত্ত্বেও ভবিষ্যতে ভারত এককভাবে চীনকে মোকাবিলা করতে পারবে বলে ইউরোপভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইউরোপিয়ান ফাউন্ডেশন ফর সাউথ এশিয়ান স্টাডিজ (ইএফএসএএস) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
পূর্ব লাদাখে সংঘর্ষের পর থেকে ভারত ও চীনের মধ্যে বেশ কয়েকটি আলোচনা হয়েছে।
চীনা সেনারা এখনো দেপসাং সমভূমি অঞ্চল, গোগরা এবং প্যাংগং সো বরাবর ফিঙ্গার্স অঞ্চলে উপস্থিত রয়েছে। ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে ইএফএসএস বলেছে, ‘সামরিক ও কূটনৈতিক পর্যায়ে ব্যস্ততা ও সংলাপ অব্যাহত থাকলেও উভয় দেশের কাছে গ্রহণযোগ্য সমাধান এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি। ফলে এই অচলাবস্থা ও বর্তমান অবস্থান দীর্ঘায়িত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
আসন্ন শীতে প্রতিকূল পরিবেশেও চীনা লাল ফৌজকে মোকাবেলা করে এলএসিতে কৌশলগত অবস্থানগুলোর নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে ভারতীয় সেনাবাহিনী এরই মধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি শুরু করেছে। রীতিমতো যুদ্ধের বার্তা দিয়ে চীনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী বলেছে, শীতের লাদাখেও পুরোদমে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত ভারতীয় সেনা।
এদিকে, চীনকে নজরে রেখে সামরিক সম্পর্ক আরও মজবুত করছে ভারত ও জাপান। দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা বাড়িয়ে তুলতে সম্প্রতি প্রতিরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে নয়াদিল্লি ও টোকিও। এই চুক্তির আসল উদ্দেশ্য চীনা বাহিনীর বিরুদ্ধে একটি সামরিক বলয় গড়ে তোলা বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।
এবার জাপানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে প্রযুক্তিতে চীনকে আরও কোণঠাসা করার চেষ্টা করছে মোদি সরকার। 5G এবং 5G প্লাসের মতো উন্নত প্রযুক্তি তৈরিতে যৌথ উদ্যোগ নিচ্ছে ভারত ও জাপান। এর জন্য QUAD স্ট্র্যাটেজিস ডায়ালগ সদস্য- আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ইজরাইলের সাহায্য নেবে দুই দেশ।
জানা গিয়েছে, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি তৈরির জন্য QUAD-এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে আগামী মাসেই একটি বৈঠক হবে জাপানে। সেই বৈঠকেই 5G ও 5G প্লাস প্রযুক্তির প্রস্তাব দেবে ভারত ও জাপান।
এখানেই শেষ হয়, প্রযুক্তি বিষয়ক ক্ষেত্রে (3GPP) চীনের প্রভাব কমাতে আরও কিছু পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের। এতদিন বেশির ভাগ চীনা প্রযুক্তি কোম্পানি গুলোই দাপট দেখিয়েছে। সেই সংখ্যা হ্রাস করাও অন্যতম লক্ষ্য ভারতের।
সম্প্রতি জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইওশিহিদে সুগার সঙ্গে কথা বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। সেখানেই স্ট্র্যাটেজিক ও গ্লোবাল পার্টনারশিপকে নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে হাত মেলান তারা। দুই দেশই বর্তমানে চীনা সেনার আগ্রাসনের মুখে। লাদাখে যেমন চোখ রাঙাচ্ছে ‘ড্রাগন’, তেমনই সেনকাকু দ্বীপেও শ্যেণ নজর তাদের। এমন পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির দিক থেকে চীনকে ভোঁতা করে দিতে ছক কষছে এই দুই দেশ। আর এই পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতে আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ইজরাইলকে পাশে চাইছেন মোদি-সুগা।




সম্পাদক ও প্রকাশক :

অফিস লোকেশন:

ফোন:

ই-মেইল:

Copyright  @ JagoBarta.  All right reserved. Website Hosted by www.bdwebs.com