dainik shomoy | logo

১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

সাতক্ষীরায় ঘরজামাইয়ের ষড়যন্ত্রের শিকার ছাত্রলীগ নেতা ও অ্যাডভোকেট পরিবার

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০, ১০:৫২

সাতক্ষীরায় ঘরজামাইয়ের ষড়যন্ত্রের শিকার ছাত্রলীগ নেতা ও অ্যাডভোকেট পরিবার

সিরিয়া পারভীন মিলা নিউজ ডেস্ক : কালীগঞ্জে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার ও ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা হারুন অর রশিদ (রনি) পিতা – এ্যাড. শেখ আব্দুস সাত্তার। এর সাথে একই গ্রামের তার সৎ মামা সম্পর্কের প্রতিবেশী মৃত বুদো গাইনের ছেলে ছুন্নত গাইনের জমির সীমানা নিয়ে বিরুধকে কেন্দ্র করে গত ১৮ সেপ্টেম্বর নিজ বাড়ি বিতাড়িত ছুন্নত গাইনের ঘরজামাই জাবেদ আল নাহিয়ান হৃদয় পিতা – গাজী জাফর আলী ও তার সম্পর্কে দুই মামা শশুর সেলিম রেজা বাবু ও শামীম রেজা ছুন্নত গাইনের স্ত্রী রুবিনা খাতুন দুই মেয়ে সালমা আক্তার রাখি ও শামিমা আক্তার রাহি জোর পূর্বক বেআইনি বাবে দেশীয় অস্ত্র, ” দাঁ,শাবল,রড” নিয়ে এ্যাড. শেখ আব্দুস সাত্তার এর জমীতে ঘেড়াবেড়া দেওয়ার ঘটনা কে কেন্দ্র করে তার স্ত্রী, পুত্র এবং সে ও শাকিল নামক এক প্রতিবেশী “দাঁ” এর কোপে গুরুতর আহত হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেয়। এছাড়াও তারা দুইটি ফোন, একটি স্বর্নের চেন আনুমানিক মূল্য ২০০০০০টাকা আত্মসাৎ করে এবং প্রায় ১০০০০০ টাকা পরিমাণ ধন সম্পদও ধ্বংস করপ।

পরবর্তীতে এ্যাড. শেখ আব্দুস সাত্তার বাদি হয়ে জাবেদ আল নাহিয়ান হৃদয় কে ১ নং আসামী করে থানায় একটি এজাহার জমা দেয়।
প্রতিপক্ষরা তাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ জমা দেওয়া সহ ছাত্রলীগ নেতা ও তার পিতা কে হেও প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্য ২০ সেপ্টেম্বর মিথ্যা সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশ করলে, ছাত্রলীগ নেতা এর প্রতিবাদে ২১ সেপ্টেম্বর একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। ইতিমধ্যে কালিগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ ( তদন্ত) ঘটনাস্হান পরিদর্শন, সাক্ষী গ্রহণ ও তদন্ত করে ২৪ সেপ্টেম্বরে আলোচনা ও মিমাংসার প্রস্তাবপ উভয় পক্ষ রাজি থাকে।

কিন্তু উক্ত জাবেদ আল নাহিয়ান হৃদয় ছাত্রলীগ নেতা হারুন অর রশিদ যে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, শেখ মোঃ আব্দুল কাদের, পিতা – মৃত আলহাজ্ব শেখ ইব্রাহিম, গেজেট পৃষ্ঠা ও তারিখ ৬৯৫৫,জুন ২৭, ২০০৫, গেজেট নং – ১১৭২ এর নাতি,যার দাদা আওয়ামী লীগের কর্মী ছিলেন, এবং তার বংশের সবাই আওয়ামী লীগের নেতা কর্মী এবং তার পিতা একজন বিজ্ঞ আইনজীবী ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য। সে একজন রাষ্ট্রপতি স্কাউট টপার, ২১ টি জাতীয় পুরুষ্কার বিজয়ী, বিএএফ শাহীন কলেজ ঢাকা একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র। এবং উক্ত কলেজের এয়ারফোর্স এয়ার রোভার এর চিফ কমান্ডেন্ট। রক্তে মুজিবীয় আদর্শ ধারণ করে ৯ম শ্রেনীতেই সে তার কর্মনিষ্ঠার মাধ্যমে মথুরেশপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ৬ নং ওয়ার্ডের সভাপতির দায়িত্ব পালন কারার পর বর্তমান কালিগজ্ঞের একজন উদীয়মানা ছাত্রলীগের নেতা হিসেবে পরিচিত লাভকরছে।

কিন্তু তাকে হেও প্রতিপন্ন করার জন্য ২৩ সেপ্টেম্বর প্রতিপক্ষরা থানার সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে স্থানীয় জামাত বিএনপির মদদে সে আবার ও সংবাদ সম্মেলনে করে এ্যাড. শেখ আব্দুস সাত্তার ও তার ছেলে শেখ হারুন অর রশিদ রনি কে অন্যয় ভাবে পুনরায় ষড়যন্ত্রেমূলক মিথ্যা অভিযোগ ও দোষারোপ করে যার স্থানীয়দের কাছ থেকে আরও জানা গেছে জাবেদ আল নাহিয়ান হৃদয় একজন দুশ্চরিত্র ব্যাক্তিত্ব হওয়ায় অন্যদের বিবাহিত স্ত্রী সাথে পরকীয়া করে পালিয়ে যায় এবং বর্তমানে সে তালাক করানো সেই স্ত্রীর বাসায় ঘরজামাই হিসেবে অবস্থান করছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায় জাবেদ আল নাহিয়ান হৃদয় তার বংশের সকলেই তৎকালীন পিসকমিটি সহ জামাত বিএনপি এর নেতা কর্মী ছিল এবং বর্তমানে অনেকেই হাইব্রিড এবং সে নিজে সুপারহাইব্রিড নেতা হওয়ার অল্প কয়েক দিনের ব্যাবধানে সে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কৃত হয়।




সম্পাদক ও প্রকাশক :

অফিস লোকেশন:

ফোন:

ই-মেইল:

Copyright  @ JagoBarta.  All right reserved. Website Hosted by www.bdwebs.com