সকাল ৮:৫৩ মঙ্গলবার ১৩ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

রাজাকার-জামায়াত জোটকে ক্ষমতার বাইরে রাখতে হবে : নেওয়াজ | কালিগঞ্জে রাতের আধারে ২ বিঘা জমির ধান কেটে নিয়েগেল প্রতিপক্ষরা | কালিগঞ্জে স্বাধীনতা প্রজন্মলীগের নব গঠিত কমিটির পরিচিতি সভা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত | বিএনপির মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু | কালিগঞ্জে অবৈধ ভাবে বোরিং মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধ অনুষ্ঠিত | কালিগঞ্জের রতনপুর ইউনিয়নে ১০ টাকা কেজী দরে চাউল উদ্বোধন | বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ আতাউর রহমানের পরিচিতি | মথুরেশপুর ইউনিয়ন স্বাধীনতা প্রজন্মলীগর নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত | কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন | কালিগঞ্জ উপজেলায় সদ্য নিয়োগ প্রাপ্ত এস আইদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন ওসি |

সাতক্ষীরায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন – ২০১৮ এর উদ্বোধন

নিউজ ডেস্ক | দৈনিক সময়
আপডেট : জুলাই ১৪, ২০১৮ , ৪:২৭ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক,জাতীয়,সাহিত্য
পোস্টটি শেয়ার করুন

 রেদওয়ান ফেরদৌস রনি (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন ২০১৮ এর আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকালে শহরের সূর্যের হাঁসি ক্লিনিক- (পিকেএস) এ সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডা. তাওহীদুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে শিশুদের মুখে এ ভিটামিন “এ” প্লাস খাইয়ে জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন ২০১৮ এর উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য বিভাগ খুলনা’র সহকারি পরিচালক ডা. বিধান চন্দ্র ঘোষ, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের পারসোনাল কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম, সূর্যের হাঁসি ক্লিনিক- (পিকেএস) এর মেডিকেল অফিসার ডা. সাবেরা সুলতানা, মেডিকেল অফিসার জয়ন্ত সরকার, সুর্যের হাঁসি ক্লিনিক (পিকেএস) ক্লিনিক ম্যানেজার মো. মফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় সুর্যের হাঁসি ক্লিনিক (পিকেএস) এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। এবার সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে ৩শ’৫১টি কেন্দ্রে জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন (১ম রাউন্ড) এ সদর উপজেলার ১২-৫৯ মাস বয়সী ৩ হাজার ৭শ’২৫ জন শিশুকে ১টি লাল রঙের ভিটামিণ “এ” ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে এবং ৬-১১ মাস বয়সী ৩ হাজার ৮শ’৫০জন শিশুকে একটি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে এবং সাতক্ষীরা জেলার ৭টি উপজেলার মোট ২০৩১টি টিকাদান কেন্দ্রে ২ লক্ষ ৩০হাজার ১শ ৩৮ জন শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সি ২১ হাজার ৭২৮ জন শিশুকে ১টি নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ১৫ মাস বয়সি ২ লক্ষ ৮ হাজার ৪১০ জন শিশুকে একটি লাল রঙের উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এ কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যকর্মী (সরকারি) ৬২১ জন এবং স্বাস্থ্যকর্মী (বেসরকারি) ২১৮ জন। স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করবেন ৪ হাজার ৬২ জন। প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকা প্রদান করা হবে।